☰ Hi, User   0

Shopping Cart

3 E NETRA (Dark Horror, Super-Natural, Suspense, Psychological, Bengali)

0 ( 0 Ratings )
Rs.207 Rs.244
Inclusive of all taxes
15.
% Off

 

  • Edited By : Riju Ganguly

  • Author : Amrita Conner, Baishali Nandi, Ipsita Majumdar

  • Series Name : BIVA Aloukik Series

  • Language : Bengali

  • Publisher : Biva Publication

  • Published on : 12-Jan-2020

  • No. of Pages : 288

  • Binding : Paperback

  • Edition : 2

  • Illustrations: No

  • ISBN : 978-93-86548-96-2

Quantity

Need Assistence ?

নমস্কার।

'দ্য আটলান্টিক' পত্রিকার ২০১৬ সালের জুলাই-অগাস্ট সংখ্যায় টেরেন্স র‍্যাফার্টি একটা প্রবন্ধ লিখেছিলেন। আজকের ক্রাইম ফিকশনের জগত কেন কয়েকজন বৃদ্ধ রাজার বদলে একঝাঁক রানির দ্বারা শাসিত হচ্ছে, তার কারণ বোঝার চেষ্টা করা হয়েছিল সেই লেখায়। প্রবন্ধটা পড়তে গিয়ে আমিও প্রথমবার ব্যাপারটা খেয়াল করি।

সত্যিই তো!

রাজনীতি আর অপরাধ, ধাবমান গাড়িতে ধর্ষন আর ঘরের চৌহদ্দির মধ্যেই আপনজনের দ্বারা নিত্য নির্যাতন- সব মিশে যাচ্ছে এখন। এই যুগের পাঠকদের জন্য রহস্যকাহিনি লেখার ব্যাপারে কি পিছিয়ে পড়ছেন পুরুষ লেখকেরা? একজন গোয়েন্দা বা একক নায়ককে কেন্দ্রে রেখে 'দুষ্টের দমন, শিষ্টের পালন' কনসেপ্ট সরিয়ে কি তাহলে মহিলা লেখকদের হাত ধরে উঠে আসছে এক অন্যরকম অন্ধকারের গদ্য?

ফিরে যাই ওই প্রবন্ধতেই, যাতে টেরেন্স লিখেছিলেন~

The female writers, for whatever reason (men?), don’t much believe in heroes, which makes their kind of storytelling perhaps a better fit for these cynical times. Their books are light on gunplay, heavy on emotional violence. Murder is de rigueur in the genre, so people die at the hands of others—lovers, neighbours, obsessive strangers—but the body counts tend to be on the low side.

... Death, in these women’s books, is often chillingly casual, and unnervingly intimate.

কথাগুলো যে সত্যি তা বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য মাত্র দুটি উপন্যাসের নাম নেওয়াই যথেষ্ট: গিলিয়ান গিন-এর “গন গার্ল” এবং পলা হকিন্সের “দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন”। সুধীজন জানবেন, এই দুটি লেখা মুদ্রিত ও চলচ্চিত্রায়িত হয়ে জনপ্রিয়তার সীমা ছাপিয়ে একটা অন্য স্তরে পৌঁছে গেছে। এই আকর্ষণের অনেক কারণ দেখানো যায়। ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয়েছে, কালো আয়নার মতো এই দুটো উপন্যাস পড়ার সময় আমাদেরই যাবতীয় ভয়, সংশয়, রাগ, আর লোভ সামনে চলে আসে। নিজেদের দুর্বল চেহারাকে লুকিয়ে রাখতে, বড়োজোর আড়চোখে দেখতে অভ্যস্ত আমরা সেই রূপ থেকে চোখ সরাতে পারি না!

এই সময়েই বাংলা সাহিত্যে যুগান্তর আসছিল সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। নিজের পেজে, বিভিন্ন গ্রুপের ইভেন্টে, ফেসবুক থেকে সরাসরি বই হওয়া বিভিন্ন সংকলনে নিয়মিত লিখতে শুরু করেছিলেন বহু মানুষ। তার মধ্যে সামাজিক গল্প-উপন্যাস, প্রেমের কাহিনি, সাবেকি চালের ভূতের গল্প- এ-সবই থাকত। কিন্তু তাদেরই পাশাপাশি থাকত স্বকীয়তায় ঝলমলে কিছু ক্রূর, শীতল, প্রায় ব্যক্তিগত হয়ে ওঠা অলৌকিক আর রহস্যগল্প। অজস্র লেখার মধ্যেও সেই লেখাগুলো আমার নজর কেড়ে নিতে থাকে। আমি বুঝতে পারি, কলকাতা লন্ডন না হলেও এই উত্তর-আধুনিক ভয়, ক্রোধ, অন্ধকার ধরা পড়তে শুরু করেছে ওই গল্পকারদের লেখায়। আর হ্যাঁ, সেই গল্পকারদের মধ্যেই ছিলেন তিন মহিলা, যাঁদের লেখার আমি ফ্যানই হয়ে গেছিলাম প্রায়!

পরে যখনই জানতে পারতাম তাঁদের লেখা থাকবে কোথাও, সেই সংকলনটি হস্তগত করতাম। সেই বইগুলো পড়তে গিয়ে স্বাভাবিকভাবেই মনে হত, শুধু এঁদের লেখা নিয়ে একটা বই হলে বড়ো ভালো হত। কিন্তু কে করবে?

বিভা পাবলিকেশনের একেবারে আদিযুগ থেকেই আমি তাদের বই কিনে, পড়ে, পড়িয়ে, ভালো না লাগলে গালাগাল দিয়ে আসছি। সেই সুবাদে জানি, এই প্রকাধনার কর্ণধার অনিমেষ প্রামাণিক নিজেই রহস্য-রোমাঞ্চ ঘরানায় একজন কুশলী লিখিয়ে এবং জবরদস্ত পাঠক। তাই এই তিন গল্পকারের লেখাজোখার সঙ্গে তাঁর যথেষ্ট ভালো পরিচয় ছিল। তিনিই এগিয়ে এলেন এঁদের প্রত্যেকের কয়েকটা গল্প নিয়ে একটা সংকলন করতে। লেখকেরা লিখবেন, প্রকাশক ছাপবেন – শুধু এই দুই তরফের চেষ্টাতেই দ্বৈত সঙ্গীতের মতো সুরেলা হয়ে উঠতে পারত এই সংকলন। কিন্তু বইটার একেবারে ত্র‍্যহস্পর্শ না করালে ব্যাপারটা বোধহয় জমছিল না। তাই তৃতীয় পক্ষ হিসেবে আমাকে সম্পাদনার দায়িত্ব দেওয়া হল। সেই কাজটা করতে গিয়ে আমি আবার চমকে গেলাম এই তিনজনের গল্পে বিষয়বৈচিত্র‍্য আর আধুনিকতা দেখে। প্রকাশককে ধন্যবাদ, তিনি এঁদের ওপর ভরসা রেখে বইটা প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। নইলে এই ব্যতিক্রমী লেখাগুলো যে কবে কীভাবে পড়তে পেতাম, জানি না।

এর বেশি কিছু বলার নেই। আগামী দিনে রহস্য-রোমাঞ্চ-অলৌকিক লেখালেখির ক্ষেত্রে বাংলা সাহিত্যকে অনেক কিছু দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন এই গল্পকারেরা। তারই একঝলক পরিচয় পেতে চাইলে এই তিন লেখকের নয়নপথ ধরে চলতে শুরু করুন এবার। বইটি পড়ে আমাদের পাশে থাকার জন্য সম্পাদকীয় ধন্যবাদ জানিয়ে এবার আসি।

ঋজু গাঙ্গুলী,

কলকাতা, জানুয়ারি ২০২০

0 Star

0 Review(s)



Submit Your Review

Your email address will not be published. Required fields are marked*

#TOP SELLING

Rs. 24 OFF


Hello User!

  1. Login / Signup
  1. Manage Account
  2. Biva Wallet
  3. Order History
  4. Your Wishlist
  5. Gift Cards
  6. Contact Us
  7. Want To Sell?